1. sm.khakon@gmail.com : bkantho :
মেয়র লুৎফুর রহমানের বিরুদ্ধে নির্বাচনী ওয়াদা ভঙ্গের অভিযোগ টাওয়ার হ্যামলেটস লেবার পার্টির - বাংলা কণ্ঠ নিউজ
শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:১৯ অপরাহ্ন

মেয়র লুৎফুর রহমানের বিরুদ্ধে নির্বাচনী ওয়াদা ভঙ্গের অভিযোগ টাওয়ার হ্যামলেটস লেবার পার্টির

মতিয়ার চৌধুরী, লন্ডন
  • রবিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৯৬ বার পড়া হয়েছে
মেয়র লুৎফুর রহমানের বিরুদ্ধে নির্বাচনী ওয়াদা ভঙ্গের অভিযোগ টাওয়ার হ্যামলেটস লেবার পার্টির

লেবার পার্টি আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে লেবার নেতৃবৃন্দ বলেন নির্বাহী মেয়র লুৎফুর রহমান একটি সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর  অদৃশ্য ইশারায় ব্রিটিশ মালটি ক্যালচারাল সোসাইটিতে বিভেদ সৃষ্টির পায়তারা করছেন।

তার একতরফা সিদ্ধান্তের কারণে টাওয়ার হ্যামলেটসের বাসিন্দারা মারাত্মক আর্থিক সংকটের সম্মুখীন হতে চলেছেন কারণ মেয়র লুৎফুর রহমান কাউন্সিল ট্যাক্স বৃদ্ধি স্থগিত রাখার নির্বাচনী ওয়াদা থেকে সরে এসেছেন। ব্যাপক অর্থনৈতিক দুরবস্থার সময়ে তিনি সর্বোচ্চ কাউন্সিল ট্যাক্স বৃদ্ধি করার সিদ্দ্বান্ত নিয়েছেন যার ফলে টাওয়ার হ্যামলেটের বাসিন্দারা বাৎসরিক অতিরিক্ত ৪.৯৯% ট্যাক্স প্রদান করবে।   টাওয়ার হ্যামলেটস লেবার গ্রুপ তার নির্বাচনী ওয়াদা ভঙ্গ করা এবং বাসিন্দাদের উপর চাপিয়ে দেওয়া আর্থিক বোঝার নিন্দা জানায়।

এক বছর আগে, চার্টার্ড ইনস্টিটিউট ফর পাবলিক ফাইন্যান্স বর্তমান প্রশাসনের অধীনে অস্থিতিশীল অর্থেনৈতিক অবস্থার বিষয়ে সতর্ক করেছিল। এই গভীর সমস্যাগুলোর সমাধান করার পরিবর্তে, মেয়র লুৎফুর রহমান বাসিন্দাদের উপর  খরচের বোঝা চাপিয়ে দেয়ার সিদ্দ্বান্ত নিয়েছেন।

টাওয়ার হ্যামলেটস লেবার পার্টির অর্থ বিষয়ক ছায়া কাউন্সিলর মার্ক ফ্রান্সিস বলেন: “মেয়র লুৎফুর রহমান কাউন্সিল ট্যাক্স  বৃদ্ধি করে বাসিন্দাদের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন। এই মুহূর্তে বাসিন্দারা জীবনযাত্রার খরচ বৃদ্ধির সাথে লড়াই করছে অথচ মেয়র রহমান তার অপ্রয়োজনীয় উপদেষ্টাদের বেতন ও আত্ম-প্রচারমূলক প্রকল্প গুলোকে  সাধারণ মানুষের মঙ্গলের চেয়ে অগ্রাধিকার দিয়েছেন।  লেবার পার্টি, কাউন্সিলের আর্থিক ব্যবস্থাপনায় একটি সৎ দৃষ্টিভঙ্গি ধারণ করে বিধায় এই দুঃসময়ে কাউন্সিল ট্যাক্স বৃদ্ধি কে সমর্থন করে না ও এর তীব্র নিন্দা জানায়    লেবার গ্রুপের নেতা কাউন্সিলর সিরাজুল ইসলাম বলেন: “লুৎফুর রহমানকে বিশ্বাস করা যায় না। তার নির্বাচনি ইশতেহারের  প্রথম পৃষ্ঠায় তিনি কাউন্সিল ট্যাক্স না বাড়ানোর ওয়াদা করেছিলেন।

এখন তিনি তার অর্থনৈতিক অব্যবস্থাপনা এড়ানো এবং অপ্রয়োজনীয় উপদেষ্টাদের খরচ নির্বাহের জন্য তার নির্বাচনী ওয়াদা ভঙ্গ করে বাসিন্দাদের উপর নির্লজ্জভাবে করের বোঝা চাপিয়ে দিয়েছেন।  বাসিন্দাদের সহোযগিতার পরিবর্তে, মেয়র লুৎফুর রহমান তার নতুন অফিস নির্মাণের জন্য প্রায় অর্ধ মিলিয়ন পাউন্ড ব্যয় করেছেন। এই বাজেট কোনোভাবেই জনগণের কল্যাণের বাজেট নয়।

সামাজিক মিডিয়ায় শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর
Developer By Zorex Zira

Designed by: Sylhet Host BD