অনুষ্কাদের নিয়ে বিপদে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড

ভারতীয় ক্রিকেটারদের সঙ্গে বিদেশ সফরে যাওয়া পরিবারের দায়দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে একেবারে হিমশিম খাচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই। একসঙ্গে এতজনের থাকা ও যাতায়াতের ব্যবস্থা করতে কালঘাম ছুটছে তাদের। ফলে বিষয়টি নিয়ে রীতিমতো তিতিবিরক্ত বোর্ড কর্তারা। বিসিসিআইয়ের এক কর্মকর্তা শুক্রবার অভিযোগ করেছেন, সদ্য শেষ হওয়া অস্ট্রেলিয়া সফরে বেশ কিছু সমস্যা দেখা দিয়েছিল।

সেই ইংল্যান্ড সফর থেকে স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে বিদেশ ভ্রমণ করছেন বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার। আর সেটা চালু হয়েছিল অধিনায়ক বিরাট কোহলির অনুরোধেই। সেই ধারা বজায় রয়েছে অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ড সফরেও। ক্যাপ্টেন কোহলির স্ত্রী অনুষ্কা তো আবার দলের গ্রুপ ছবিতে সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে পড়ছেন। তা নিয়ে সম্প্রতি তাকে ট্রোলডও হতে হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। শুধু বিরাটই নন, শিখর ধাওয়ান, ভুবনেশ্বর কুমার ও ইশান্ত শর্মাও তাদের পরিবারের সঙ্গে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। ক্রিকেটারদের এই পারিবারিক সান্নিধ্য দিতে গিয়ে বেজায় বিপাকে পড়েছে বিসিসিআই। বিষয়টা এখন তাদের কাছে ‘মাথাব্যথা’র কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আসন্ন বিশ্বকাপেও এই ট্র্যাডিশন বজায় থাকলে বোর্ডের কাছে তা উদ্বেগের বিষয় হয়ে দাঁড়াবে বলে মন্তব্য করেছেন বিসিসিআইয়ের এক কর্তা।

তিনি বলেছেন, ‘ভারতীয় দল যদি কম সদস্যদের নিয়ে ভ্রমণ করে, তাহলে বিষয়টা সামলানো সহজ হয়। হোটেলের রুম বুকিং থেকে টিকিট বুকিং, সবই বিসিসিআই-কে ব্যবস্থা করতে হয়। এখানেই শেষ নয়, ম্যাচ টিকিটের বন্দোবস্তও করতে হয় আমাদের। বিষয়টা অর্থের নয়। সমস্যাটা হলো বিদেশে একসঙ্গে এতজনের ব্যবস্থাপনা করা। আসন্ন বিশ্বকাপেও যদি এমনটা চলে, তাহলে তা চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়াবে।’

সদ্য শেষ হওয়া অস্ট্রেলিয়া সফরে বেশ কিছু সমস্যা দেখা দিয়েছিল বলে খবর। সাপোর্ট স্টাফ ও সপরিবার ক্রিকেটারদের এক শহর থেকে অন্য শহরে নিয়ে যেতে খুবই অসুবিধের মধ্যে পড়তে হয়েছে টুর কন্ডাক্টরদের। পরিবারের সদস্য সংখ্যা কখনো কখনো ৪০ ছাড়িয়ে যাওয়ার ফলে দুটি বাস ভাড়া করেও সবার জায়গা হয়নি।

উল্লেখ্য, নিজের নিজের পরিবারের খরচের বিল ক্রিকেটাররা মিটিয়ে দেন। ফলে তাদের আর্থিক বোঝা বহন করতে না হলেও এতজনের থাকার ও যাতায়াতের ব্যবস্থা করতে গিয়েই রাতের ঘুম ওঠার জোগাড় হয়েছে বোর্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *