1. sm.khakon@gmail.com : bkantho :
৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ : কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে আ’লীগ - বাংলা কণ্ঠ নিউজ
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ১০:০৬ অপরাহ্ন

৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ : কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে আ’লীগ

বাংলা কণ্ঠ ডেস্ক
  • রবিবার, ২৩ জুন, ২০২৪
  • ৩২ বার পড়া হয়েছে
৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ : কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে আ’লীগ

আজ ২৩ জুন। নানা ঘাত-প্রতিঘাত আর চড়াই-উতরাইয়ের মধ্য দিয়ে পঁচাত্তর পেরিয়ে ছিয়াত্তরে পা রাখছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। ১৯৪৯ সালের এই দিনে পুরান ঢাকার কে এম দাস লেনের রোজ গার্ডেন প্যালেসে প্রতিষ্ঠা লাভ করে দেশের প্রাচীনতম এই রাজনৈতিক দলটি। দীর্ঘ পথচলায় নানা প্রতিবন্ধকতা মোকাবেলা করে আসা দলটি গেল জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মাঠের প্রধান বিরোধী দল বিএনপিবিহীন নির্বাচনে জয়লাভের মধ্য দিয়ে টানা চারবার রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় বসলেও এবার কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে। অর্থনৈতিক সঙ্কটের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার পাশাপাশি রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় টিকে থাকা নিয়েও প্রকাশ্যে সভা সমাবেশে সংশয় প্রকাশ করছেন সরকারি দলের শীর্ষ নেতৃত্ব। এ জন্য বিএনপি-জামায়াত ও আন্তর্জাতিক মহলের ষড়যন্ত্র দেখছে দলটির শীর্ষ নেতৃত্ব।

এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের প্রবীণ রাজনীতিবিদ অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন এক প্রতিক্রিয়ায় নয়া দিগন্তকে বলেন, বর্তমানে আওয়ামী লীগ একটা কঠিন সময় পার করছে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ বিজয় লাভ করলেও নির্বাচন অনুষ্ঠানকেন্দ্রিক কিছু প্রশ্ন তুলেছে দেশীয়-আন্তর্জাতিক মহলের একটি অংশ। বিএনপি ও তার মিত্ররা নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে সরকারের বিরুদ্ধে নানা ষড়যন্ত্র করছে। এ ছাড়া আন্তর্জাতিক মহলের মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিভিন্ন সময় কৌশলে সরকারকে চাপে ফেলারও চেষ্টা করে থাকে। তিনি মনে করেন, ২৩ জুন দেশের প্রাচীন ও বৃহৎ রাজনৈতিক দল হিসেবে আওয়ামী লীগ ৭৫ বছর পার করছে- এটি আমাদের জন্য গর্বের ও আনন্দের। দীর্ঘ এ সময় আওয়ামী লীগ নানা প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে অতিবাহিত করেছে। দুঃসময় এসেছে, সেগুলো অতিক্রম করে একটা পর্যায়ে সুসময়ের দেখা মিলেছে। তেমনিভাবে অতীতের মতো বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সব ষড়যন্ত্র ও চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে আওয়ামী লীগ সামনের দিকে এগিয়ে যাবে। এ দেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রার ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে।

২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশভাবে জয়লাভ করার পর থেকে আজ অবধি নিরবচ্ছিন্নভাবে শাসনভার আওয়ামী লীগের হাতেই রয়েছে। তবে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন এবং ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের স্বচ্ছতা ও গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে দেশ-বিদেশে প্রশ্নের মুখে রয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার। দেশীয়-আন্তর্জাতিক অঙ্গনে চাপে থাকাবস্থায় সরকার গঠন ও রাষ্ট্র পরিচালনা করলেও সেই বিতর্ক শেষ না হতেই গেল ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এবারো মাঠের প্রধান বিরোধী দল বিএনপিবিহীন নির্বাচনে ডামি প্রার্থী দিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করার চেষ্টা করেও নতুন বিতর্কে জড়িয়েছে শাসক দলটি। একটি বড় রাজনৈতিক দলকে পাশ কাটিয়ে বারবার জাতীয় সংসদ নির্বাচন আয়োজন করাকে গণতন্ত্র সুসংহতকরণে অন্তরায় বলে মনে করেন দেশের রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞমহল।

অবশ্য দীর্ঘ শাসনকালে মিয়ানমার ও ভারতের সাথে সমুদ্র সীমানা নির্ধারণ, ভারতের সাথে ঐতিহাসিক ছিটমহল বিনিময় চুক্তি, বঙ্গবন্ধু টানেল নির্মাণ, মেগা প্রজেক্ট মেট্রোরেলের দৃশ্যমান অগ্রগতিসহ দেশের অবকাঠামো উন্নয়নে নানা সফলতার দিক রয়েছে। বিশেষ করে মেগা প্রজেক্ট পদ্মা সেতু নির্মাণ আওয়ামী লীগ এবং তার সরকারের জন্য বড় ধরনের চ্যালেঞ্জ ছিল। সেই চ্যালেঞ্জ উতরিয়ে ২০২২ সালের ২৫ জুন জমকালো আয়োজনে পদ্মা সেতু উদ্বোধন করা হয়। এ ছাড়াও দীর্ঘ পথচলায় বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন, ৬৬ সালের ছয় দফা, ঊনসত্তরের গণ-অভ্যুত্থান, একাত্তরের মহান স্বাধীনতা সংগ্রাম, ৯৭ সালের পার্বত্য শান্তিচুক্তি সম্পাদনসহ দলটির বড় বড় সফলতা থাকলেও কিছু বিতর্কিত কর্মকাণ্ড এমনভাবে কাঁধে চেপে বসেছে, যার ফলে সফলতাগুলো অনেকটা ম্লান হয়ে যাচ্ছে।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহল মনে করছেন, গত সাড়ে ১৫ বছরে দেশের কিছু অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও বিভিন্ন খাতে কিছু সফলতা রয়েছে- এটি অস্বীকার করার উপায় নেই। কিন্তু নিত্যপণ্যের বাজারে দামের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতিতে মধ্যবিত্তের সংসার চালাতে নাকানি-চুবানি খেতে হচ্ছে। এ ছাড়াও বিভিন্ন খাতে বড় বড় রাঘববোয়ালদের উচ্চমাত্রায় দুর্নীতি ও অর্থপাচারের খবর সেই সফলতায় বড় ধরনের ভাটা পড়েছে। বিশেষ করে বিএনপির অংশগ্রহণে সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য আওয়ামী লীগ সরকারের ওপর বিশ্বের মোড়ল রাষ্ট্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক অঙ্গনের বেশ কয়েকটি দেশ ও সংস্থার জোরালো তাগিদ থাকা সত্ত্বেও প্রশ্নহীন নির্বাচন উপহার দিতে না পারায় নতুন সঙ্কটে পড়েছে আওয়ামী লীগ সরকার। সম্প্রতি দক্ষিণ এশিয়াবিষয়ক মার্কিন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ডোনাল্ড লু বাংলাদেশ সফরকালে সরকারের সাথে সম্পর্কোন্নয়ন ও অতীতের তিক্ততা পেছনে ফেলে সামনের দিকে এগোনোর কথা বলেন। কিন্তু ডোনাল্ড লু সফর করার পরই আওয়ামী লীগ সরকারের অন্যতম শুভাকাক্সক্ষী সাবেক সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদকে তার পরিবারসহ যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা ও অযোগ্য ঘোষণা করায় এবং সাবেক আইজিপি বেনজীর আহমেদের দুর্নীতির খবর প্রকাশে তোলপাড় সৃষ্টি হওয়ায় উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা ও বেশ অস্বস্তির মধ্যে রয়েছে সরকারি দল।

অবশ্য সরকারি দলের শীর্ষ নেতৃত্ব মনে করেন, আওয়ামী লীগ সরকারের পররাষ্ট্রনীতি হলো সবার সাথে বন্ধুত্ব, কারো সাথে শত্রুতা নয়। এই নীতিকে সামনে রেখে এরকম চ্যালেঞ্জ অতীতেও আওয়ামী লীগ মোকাবেলা করেছে। কিছু সময় লেগেছে কিন্তু আওয়ামী লীগ শেষমেশ সফলতা পেয়েছে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের পর আন্তর্জাতিক মহলের এই কঠিন চ্যালেঞ্জও এবার আওয়ামী লীগ ধৈর্যসহকারে মোকাবেলা করেই সফলতা পাবে।

এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম এমপি নয়া দিগন্তকে বলেন, আমাদের দলের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী তথা প্লাটিনাম জয়ন্তী উদযাপন ২৩ জুন। একটা দলের জন্য এটি অনেক সময়, এটি আমাদের জন্য একটা আনন্দের ও গর্বের। জাঁকজমকপূর্ণ ও আনন্দঘন পরিবেশে দলের প্লাটিনাম জয়ন্তী উদযাপনের জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। এর মাধ্যমে আওয়ামী লীগের সুদীর্ঘ ইতিহাস, ঐতিহ্য, আন্দোলন, সংগ্রামের ইতিহাস ও ভূমিকা তুলে ধরা হবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের ইতিহাসে অনেক চ্যালেঞ্জ সামনে এসেছে। আমরা কঠিন সময় দেখেছি, সেই কঠিন সময় পার করেছি, নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে আমরা এ পর্যন্ত এসেছি। আগামীতেও যে চ্যালেঞ্জগুলো আসবে এবং চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছি সেগুলো বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা মোকাবেলা করতে সক্ষম হবো- ইনশা আল্লাহ।

সামাজিক মিডিয়ায় শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর
Developer By Zorex Zira

Designed by: Sylhet Host BD