সিনেমায় নেই তবু সংবাদে অপু

মাধ্যমটা যাই হোক আলোচনায় আসতে হবে। কারণ মনে ধারণ করা হয়েছে, প্রচারেই প্রসার। সত্য কিংবা মিথ্যা যাচাই এখানে কোনো ব্যাপারই না। সম্প্রতি এমনই এক ঝামেলায় পড়েছেন চিত্র নায়িকা অপু বিশ্বাস। কথা নেই বার্তা নেই তাকে ঘিরে ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে মন গড়া খবর। আর এগুলো করা হচ্ছে পরিকল্পিতভাবেই। কারণ অপু নামটি থাকলেই প্রচারণা পাওয়া যায় সহজে।

সর্বশেষ একটি সিনেমায় তার নাম জড়িয়ে ছাপা হয়েছে সংবাদ। পরিচালক, প্রযোজক, নায়ক সবাই বলছেন, তাদের সাথে কাজ করবেন অপু বিশ্বাস। ছবির নাম ‘কাঙাল’। পরিচালনা করবেন বদিউল আলম খোকন। ছবির নায়ক ডি এ তায়েবও গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন অপুই হবে তার নায়িকা। বিষয়টি নিয়ে অপুর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেছেন, নাহ, আমি কাঙাল ছবিতে অভিনয় করছি না।

স্বামী-সন্তান নিয়ে অনেক ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে অপুকে। এরমধ্যেই গত ৭ অক্টোবর শুটিংয়ে ফিরেছেন পুরনো সিনেমা দিয়ে। মা হওয়ার আগ মুহূর্তে সিনেমার কাজ থেকে বিদায় নেন অপু। দুই দিন শুটিংয়ের মধ্য দিয়ে মান্নান গাজীপুরি পরিচালিত ‘পাঙ্কু জামাই’ নামের এই সিনেমার অসমাপ্ত কাজ শেষ করেছেন। গণমাধ্যমের কাছে বিয়ে ও সন্তান নিয়ে মুখ খোলার পর টেলিভিশনের বিভিন্ন টক শো আর অনুষ্ঠানে অংশ নিলেও সিনেমার কাজে সেদিনই প্রথম ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান তিনি। এই ছবির বাইরে অপুকে নিয়ে নতুন সিনেমায় কাজ শুরুর ঘোষণা দিয়েছেন অনেকে। ওইগুলোরও অধিকাংশের ব্যাপারে অপু কিছুই জানেন না।

চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টদের মতে, যারা এখন অপুকে নিয়ে সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দিচ্ছেন, তারা সবার নজরে আসতে চান। কারণ, অপু দেশের সিনেমার সবচেয়ে আলোচিত মুখ। রোজার ঈদের সময় বুলবুল বিশ্বাসের ‘রাজনীতি’ সিনেমার মুক্তির আগে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরুও অপুকে নিয়ে সিনেমা তৈরির ঘোষণা দেন। কিন্তু এখন বোঝা যাচ্ছে, তা ঘোষণার মধ্যেই আটকে আছে। অপু বিশ্বাসও অবশ্য নিজেকে চলচ্চিত্রে ফেরাতে মরিয়া। নিয়মিত জিমে যাচ্ছেন। পুষ্টিবিদদের পরামর্শ মেনে চলছেন।

‘কাঙাল’ সিনেমা সম্পর্কে অপু বলেন, ‘এই সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েছি ঠিকই, কিন্তু না করে দিয়েছি। এখন নিজেকে ফিট রাখার মিশনে আছি। নিজেকে পুরোপুরি তৈরি না করা পর্যন্ত নতুন কোনো সিনেমায় কাজ করব না। আর যখন নতুন সিনেমায় অভিনয় করব, ঘোষণা দিয়েই আসব। আমাকে না জানিয়ে অনেকেই মনগড়া খবর ছড়াচ্ছে। এসবের কিছুই আমি জানি না।’

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ না করে শুধু নিজেদের প্রচারণার জন্য আলোচিত ব্যক্তিকে নিয়ে মন গড়া ঘোষণা ব্যক্তির ইমেজই নষ্ট করে না, শিল্পীকেও বিব্রতকর অবস্থার মধ্যে ফেলে। তাই চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা মনে করেন এসব ব্যাপারে সবাইকে আরো দায়িত্বশীল হওয়া আবশ্যক।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *