নির্যাতিত-নিপীড়িত মানুষকে সহায়তায় BHRC কাজ করে যাচ্ছে : ড. দিলদার

বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন-BHRC’র মহাসচিব ড. সাইফুল ইসলাম বলেছেন, সকল মানবাধিকার কর্মীদের নির্যাতন-নিপীড়নের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে। তিনি বলেন, নির্যাতিত-নিপীড়িত মানুষের সহায়তায় BHRC দেশ-বিদেশে কাজ করে যাচ্ছে। ফেনী নোয়াখালী লক্ষীপুর জেলার আঞ্চলিক মানবাধিকার সম্মেলন ২৫ আগষ্ট ২০১৭ সকালে ফেনী শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠানকালে তিনি একথা বলেন। BHRC ফেনী জেলা শাখার সভাপতি মানবতাবাদী মোঃ শহিদ উল্লাহ ভুইয়া সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন ফেনী জেলা প্রসাশক মনোজ কুমার রায়। তিনি সমাজে মাদক বিরোধী ও বাল্য বিবাহও সন্ত্রাস দমনে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানান।
সম্মেলন উদ্বোধন করেন BHRC’র প্রতিষ্ঠাতা ও মহাসচিব ড. সাইফুল ইসলাম দিলদার। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সহ সারা বিশ্বে নির্যাতিত নিপিডিত মানুষের পক্ষে মানবাধিকার কমিশন কাজ করছে। তিনি বলেন, “মানুষ মরণশীল।” আমাদের সবাইকে একদিন না একদিন মরতে হবে। মৃত্যুর পর স্থান হবে কবরস্থান অথবা শ্মশানে। ভাল কাজের মাধ্যমে মৃত্যুর পরেও পৃথিবীতে অনেক মানুষ যগযুগান্তর অমর হয়ে রয়েছেন। আসুন আমরাও ভাল কাজের দৃষ্টান্ত স্থাপন করি। প্রত্যেকেই এমন কিছু করুন যেন মৃত্যুর পরেও মানুষ আপনাকে স্মরণ করে। BHRC’র মহাসচিব ড. সাইফুল ইসলাম দিলদার উপর্যুক্ত কথাগুলো বলেছেন। তিনি আরও বলেন, “একজন মানবাধিকার কর্মী হিসেবে আমাদের ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে কাজ করে যেতে হবে। যতক্ষণ পর্যন্ত সমাজের প্রত্যেকটি স্তরে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা না হবে, ততক্ষণ পর্যন্ত সকল স্থানে সাংগঠনিক কার্যক্রম ছড়িয়ে দিয়ে সকলকে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে যেতে হবে। BHRC’র মহাসচিব দেশের সারভৌমত্ত্ব রক্ষায় নিজেদেরকে নিয়োজিত রাখবেন বলে সকলকে শপথ বাক্য পাঠ করান এবং মানবাধিকার কর্মীদের মাঝে সম্মামনা পদক বিতরণ করেন। এতে আরও বক্তব্য রাখেন ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যন আব্দুল আলিম মজুমদার, BHRC’র গভর্নর মানবতাবাদী এম.ডি জাফর উল্লাহ, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন আঞ্চলিক শাখার সভাপতি জসীম আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক এস.এম. ইশতিয়াক-উর-রহমান ঢাকা মহানগর সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মিলন, লক্ষীপুর জেলা সভাপতি সামছুল করিম খোকন নোয়াখালাী জেলা সাধারণ সম্পাদক এড: আবদুর রাজ্জাক, ফেনী জেলা সহ সভাপতি কাজী আবদুল বারী, এড. ওবায়দুল হক সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান ভুইয়া, হাফিজুর রহমান সহ প্রমুখ।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *