মাকে হত্যার দায়ে ছেলের মৃত্যুদণ্ড

বগুড়ায় মাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যার দায়ে ছেলের মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল রেখেছে বগুড়ার একটি আদালত। রোববার বগুড়া জেলা ও দায়রা জজ আদলত-৩ এর বিচারক মোঃ গোলাম ফারুক রায়টি ঘোষণা করেন।

মামলার নথি থেকে জানা গেছে, বগুড়া জেলার কাহালু উপজেলার কাজীপাড়ার আব্দুর রহমান বাচ্চুর পুত্র রায়হান আলী (৩৫) দীর্ঘদিন যাবৎ অন্যত্র বিয়ে করে শ্বশুর বাড়ীতে থাকছিল। গত ২০০৯ সালের ২৭ জুলাই সকাল সোয়া ৮টায় নিজ বাড়ীতে এসে মা রওশন আরার কাছে জমি দাবী করে। এ নিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে রায়হান মাকে মারপিটসহ ধারালো অস্ত্র দিয়ে বুকে ও পিঠে আঘাত করে। এসময় আশেপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তাদেরকেও মারপিট করে। পরে মূমুর্ষূ অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান রওশন আরা। ওই ঘটনায় সেদিনই বোন রাবেয়া বাদী হয়ে রায়হানকে একমাত্র আসামী করে কাহালু থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পরে ২০০৯ সালের ২৮ আগষ্ট কাহালু থানার এসআই শরিফুল ইসলাম আসামী রায়হানকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। ওই মামলায় ২০১০ সালের ২১ অক্টোবর আসামীর বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত -৩।
ওই রায়ের বিুরদ্ধে আসামী উচ্চ আদালতে ২০১০ সালে আপিল করলে আদালত পুন:বিচারের জন্য ২০১৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারী একই আদালতে প্রেরণ করেন।

বগুড়া জেলা ও দায়রা জজ আদলত -৩ এর অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর পদ্ম কুমার দেব জানান, সাক্ষ্যপ্রমাণের পর বিচারক মোঃ গোলাম ফারুক আসামী রায়হানকে মৃত্যুদন্ডাদেশ প্রদান করেন। রায় ঘোষনার কালে আসামী আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *