হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে দূদর্ষ ডাকাত ঝিলকী নিহত

বানিয়াচংয়ে ডাকাত-পুলিশ বন্দুকযুদ্ধে ১ ডাকাত নিহত ও ৪ পুলিশ আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার ভোর রাতে বানিয়াচং-শিবপাশা সড়কের আনজইন ব্রীজের পাশে। নিহত ডাকাত সাইফুল ইসলাম ওরফে ঝিলকি (৩২) উপজেলা সদরের মাদারীটুলা গ্রামের মৃত মতিউর রহমানের ছেলে। আহত এসআই ওমর ফারুক মোড়ল, এএসআই প্রদীপ কুমার দাশ, এএসআই হারুন মিয়া ও এএসআই বিশ^জিৎকে বানিয়াচং হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে এএসআই প্রদীপ কুমার দাশের হাতে ডাকাতদলের ছুড়া গুলি বিদ্ধ হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি পাইপগান, ৩ রাউন্ড তাজা গুলি, ৫ রাউন্ড ব্যবহৃত গুলি ও ৪ টি রামদা উদ্ধার করেছে।
পুলিশ জানায়, বুধবার বিকালে ডজনখানেক মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত পলাতক আসামী ডাকাত সাইফুল ওরফে ঝিলকি তার আত্মীয় ইসমত আলীর কাগাপাশা ইউনিয়নের ইছবপুর গ্রামের বাড়ীতে অবস্থান করার খবর পেয়ে বানিয়াচং থানার ওসি মোজাম্মেল হকের নেতৃত্বে পুলিশ বাড়ীটি ঘেরাও করে অভিযান চালালে ডাকাতরা পুলিশের উপর গুলি চালায়। এসময় কৌশলে পুলিশ ঝিলকি ও মস্তোফা নামে দুই ডাকাতকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হলেও তাদের সহযোগী অন্য ডাকাতরা পালিয়ে যায়। পরে গ্রামবাসী আজম মিয়া ও মনু মিয়া নামে আরও দুই ডাকাতকে পাকড়াও করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করলে আহত অবস্থায় তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অস্ত্র উদ্ধারে ঝিলকিকে সাথে নিয়ে পুলিশ অভিযান চালানোর সময় বৃহস্পতিবার ভোররাতে আনজইন ব্রীজের পাশে ডাকাত-পুলিশ বন্দুকযুদ্ধে ডাকাত ঝিলকি নিহত ও চার পুলিশ আহত হয়।

মখলিছ মিয়া, বানিয়াচং(হবিগঞ্জ)॥

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *