ক্ষমতা নয়, বিএনপি যাচ্ছে খাদের দিকে: হানিফ

রোববার দুপুরে রাজধানীতে একটি শ্রমিক সংগঠনের সম্মেলনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের সমালোচনা করে এ পরামর্শ দেন তিনি।

হানিফ বলেন, “ভুল রাজনীতি, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ও একাত্তরের পরাজিত শক্তিকে রক্ষা করার কারণে আপনারা (বিএনপি) জনগণ থেকে পা পা করে খাদের কিনারার দিকে যাচ্ছেন। তাই ক্ষমতায় যাওয়ার স্বপ্ন আপনাদের আপাতত না দেখলেও চলবে।”

আগের দিন নয়া পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নিজের দপ্তরে ‘বিএনপিকে বাইরে রেখে আগামী নির্বাচন করা সহজ হবে না’ বলে সাংবাদিকদের মন্তব্য করেন দশম সংসদ নির্বাচন বর্জন করা দলটির মহাসচিব।

এর জবাবে মির্জা ফখরুলের উদ্দেশ্যে হানিফ বলেন, “তার মানে কি আপনারা আগেই ‘ওয়াক ওভার’ দিতে চাচ্ছেন? নির্বাচনে আসবেন কি আসবেন না, সেই সিদ্ধান্ত আগেই নিয়ে ফেলেছেন নাকি?

“আমরা কি বলেছি, আমাদের সরকার কি বলেছে যে, আগামী নির্বাচন আমরা এক তরফা করবো? আপনাদের বাদ দিয়ে করবো? এমন কথা কি কোথাও এসেছে? আমরা তো সব সময়ই বলেছি, সকল দলের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন আমরা চাই। কাউকে বাদ দিয়ে নির্বাচন করায় বিশ্বাসী আমরা নই।”

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ না নিয়ে বিএনপির ভুল করেছে বলে মন্তব্য করেন হানিফ বলেন, “আমরা আশা করি আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এই ভুল আর করবেন না।ভুল করলে, ভুলের খেসারত আপনাদের দিতে হবে।

“এটার জন্য জনগণ খেসারত দিবে না। আপনাদের ভুলের খেসারত জনগণ দিতে পারে না।”

সামনের নির্বাচনে বিএনপি ক্ষমতায় যেতে পারবে না বুঝেই দলটির নেতারা ‘নির্বাচনে না যাওয়ার’ একটা অজুহাত দাঁড় করানোর চেষ্টা চালাচ্ছেন বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

তিনি বলেন, “আপনারা ক্ষমতায় যাওয়ার স্বপ্ন দেখবেন কীভাবে? আপনাদের নেত্রী খালেদা জিয়া, ওনি নিজেই তো বলেছেন, আওয়ামী লীগ আরও পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকার জন্য পাকাপোক্ত করে এসেছে। তার মানে তিনি বুঝে ফেলেছেন, আগামী নির্বাচনে  আওয়ামী লীগ আরও পাঁচ বছরের জন্য ক্ষমতায় আসছে।

“জনগণের কিছু আওয়াজ পেয়ে থাকলে উনি বুঝার কথা, তাই ওনি বুঝেছেন। বুঝেই বলেছেন, আওয়ামী লীগ আগামী নির্বাচনের মাধ্যমে আবার পাঁচ বছরের জন্য ক্ষমতায় আসার রাস্তা পাকা করে ফেলেছে।”

বাংলাদেশ পোস্টম্যান ও ডাক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি নাছির আহমেদের সভাপতিত্বে সংগঠনটির দ্বিবার্ষিক কাউন্সিল অধিবেশনে আওয়ামী লীগের শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, ডাক বিভাগের মহাপরিচালক সুশান্ত কুমার মণ্ডল, শ্রমিকলীগের সভাপতি শুক্কুর মাহমুদ, শ্রমিক লীগের ফজলুল হক মন্টু, বিসিএস পোস্টাল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশীদ, শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আমজাদ আলী এসময় উপস্থিত ছিলেন ।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *