পাহাড়ি ঢলে প্লাবিত সুনামগঞ্জের হাওর এলাকা পরিদর্শনে আসছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। আগামী ১৭ এপ্রিল সুনামগঞ্জের হাওর এলাকা পরিদর্শন শেষে স্থানীয়দের সঙ্গে মতবিনিময়ও করবেন তিনি। এর আগে ১৬ এপ্রিল তিনি কিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলায় ক্ষতিগ্রস্ত হাওর এলাকা পরিদর্শন করবেন। আবদুল হামিদের বাড়ি মিঠামইন।

রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, “মহামান্য রাষ্ট্রপতি আগামী ১৬ ও ১৭ এপ্রিল হেলিকপ্টারে করে আগাম বন্যা প্লাবিত এলাকা পরিদর্শন করবেন। ১৮ এপ্রিল তিনি ঢাকা ফিরবেন।”

রাষ্ট্রপতির প্রেস উইং থেকে জানানো হয়েছে, ১৬ এপ্রিল মিঠামইন উপজেলায় ‘জেলা পরিষদ মিলনায়তনে’ এবং পরদিন সুনামগঞ্জের শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে জনপ্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি, মুক্তিযোদ্ধাসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন।

সম্প্রতি পাহাড়ি ঢলে সুনামগঞ্জ, সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, নেত্রকোণা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অধিকাংশ হাওর প্লাবিত হয়ে কৃষকের বোরো ধান তলিয়ে গেছে। এতে শুধু নেত্রকোণা, সুনামগঞ্জ ও কিশোরগঞ্জ জেলায় কৃষক দুই কোটি পাঁচ লাখ মন ধান হারিয়েছে বলে বেসরকারি একটি সংগঠনের পরিসংখ্যানে জানানো হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, নেত্রকোণা, হবিগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার হাওর এলাকায় বাঁধ ভেঙে বিস্তীর্ণ এলাকার ফসল তলিয়ে যাওয়ায় হাওর অঞ্চল থেকে উঠে আসা আবদুল হামিদের উৎকণ্ঠার খবরও গত ৯ এপ্রিল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায় রাষ্ট্রপতির কার্যালয়।

print

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here