মহান মুক্তিযুদ্ধে সশস্ত্র যুদ্ধাদের পাশাপাশি খেলোয়ার, শিল্পী, চিকিৎসক আর লেখকসহ বিভিন্ন পেশাজীবিদের সক্রিয় অংশ গ্রহন ছিল। তবে তারা অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করেননি। শিল্পীরা করেছেন গান গেয়ে, আর খেলোয়াররা বিদেশের মাঠিতে দেশের পক্ষে খেলাধুলায় অংশ নিয়ে দেশে অনেক খেলার চর্চা থাকলেও শুধু মাত্র ফুটবলই ছিল মুক্তিযুদ্ধের খেলা। তাই মহান স্বাধীনতা দিবসে ওই ফুটবল খেলা দিয়েই উৎযাপন করলেন হবিগঞ্জের রোটারি ক্লাব অব হবিগঞ্জ সেন্ট্রাল ও রোটারি ক্লাব অব হবিগঞ্জ খোয়াই। ২৬শে মার্চ বিকেলে আধুনিক স্টেডিয়ামে দুই দলই পেশাদার ফুটবলারদের মত নেমে যান মাঠে। রেফারী ফেরদৌস আহমেদের বাশির সাথে সাথেই জয়ের জন্য ঝাপিয়ে পড়েন দুই দলের খেলোয়াররা। প্রথম আর্ধে ১০ মিনিটের খেলায় আফজল গোল করে তার দলকে এগিয়ে দেন। কিছুক্ষণ পরেই সেই গোল শোধ করেন সেন্ট্রালের মুশাহিদ। দ্বিতীয়আর্ধে শেষ দিকে মুশাহিদ আরেকটি গোল করলে সেন্ট্রালের জয় নিশ্চিত হয়। তবে বদলি গোল রক্ষক আল-আমিন সুমন চীনের প্রাচীরের ন্যায় না দাড়ালে সেন্ট্রালের জয়টি আরও বড় হত বলে মন্তব্য করেন অথিতি রোটারিয়ান এডভোকেট পুণ্যব্রত চৌধুরী বিভু, খেলা শেষে তিনি সেরা খেলোয়ার মনোনীত করেন সুমনকে। মাঠে খেলোয়ারদের পাশাপাশি অন্যান্য ক্লাব সদস্যরাও উপস্থিত থেকে নিজ দলকে উৎসাহ যোগান। খেলাধুলার মাধ্যমে পেলোশিপকে চমৎকার উদ্যোগ বলে মন্তব্য করেন এডভোকেট পুণ্যব্রত চৌধুরী বিভু। তিনি বলেন, এটিই হল রোটারিয়ানদের মুল স্পেরিট।

print

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here