কুষ্টিয়া-৪ আসনে ৮ প্রার্থীর মনোনয়ন সংগ্রহ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুষ্টিয়া-৪ (খোকসা-কুমারখালী) আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা শুক্রবার (৯ নভেম্বর) পর্যন্ত দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। এই আসনের দলীয় মনোনয়ন পেতে বর্তমান ও সাবেক সংসদ সদস্যসহ মোট ৮ জন নেতা দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন।

মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে ইতোমধ্যে যারা ফরম সংগ্রহ করেছেন তাদের মধ্যে- সাবেক সংসদ সদস্য বেগম সুলতানা তরুণ, জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক জাহিদ হোসেন জাফর, কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও খোকসা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ সদর উদ্দিন খান, কুমারখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ আব্দুল মান্নান খান, জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক সুফি ফারুক, শহীদ গোলাম কিবরিয়া ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ, খোকসা পৌর আওয়ামী লীগের নেতা মিজানুর রহমান বিটু ও ঢাকা মিডিয়া ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা ও দৈনিক বিজনেস ফাইল পত্রিকার সম্পাদক অভি চৌধুরী, অ্যাডভোকেট রানা সিদ্দিক। তবে গ্রিন সিগন্যাল পেলেই নাকি বর্তমান সংসদ সদস্য আব্দুর রউফ মনোনয়ন ফরম কিনবেন এমনটা শোনা যাচ্ছে জনশ্রুতিতে।

এছাড়াও কুমারখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র সামছুজ্জামান অরুন ও উপজেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ও নন্দলালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নওশের আলী বিশ্বাস দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করবেন বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে।

কুষ্টিয়া-৪ আসনের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীর সংখ্যা ১০ জনেরও অধিক হতে পারে। কিন্তু দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনা ইতোমধ্যেই এই আসনের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের বিষয়ে খোঁজ-খবর নিয়েছেন। এখন তিনিই নির্ধারণ করবেন কাকে মনোনয়ন দিলে এই আসনটি ধরে রাখা সম্ভব হবে।

জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু কুষ্টিয়া-৪ আসনটি দাবি করবেন বলেও দলীয় সূত্রে জানা গেছে। ফলে এই আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) কেন্দ্রীয় নেতা রোকনুজ্জামান রোকন আগে থেকেই এ আসনে ব্যাপক গণসংযোগ করে বেড়াচ্ছেন। অপরদিকে এই আসনে ২০ দলীয় জোট থেকে সাবেক এমপি ও কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির সভাপতি সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী গণসংযোগ করছেন। তিনি ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে পরাজিত করে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন। তার পাশাপাশি বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে সহসভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র শিল্পপতি নূরুল ইসলাম প্রামানিক আনসারের নাম শোনা যাচ্ছে।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *