ময়মনসিংহে আ’লীগের ২ বিদ্রোহীসহ প্রতীক পেলেন ৫৭ জন

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি : একাদশ জাতীয় সংসদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য ময়মনসিংহের ১১টি আসনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয়পার্টিসহ বিভিন্ন দলের ৫৭ প্রার্থী প্রতীক বরাদ্দ পেয়েছেন।

এর মধ্যে আওয়ামী লীগের ১০ জন, স্বতন্ত্র (আ’লীগ বিদ্রোহী) ২ জন, বিএনপির ৯ জন, মহাজোটের জাতীয় পার্টির ২ জন, জাতীয়পার্টির (এরশাদ) ৪ জন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ১১ জন, জাকেরপার্টির ৪ জন, সিপিবির ২ জন, জাসদ (ইনু) ১ জন, ঐক্যফ্রন্ট (গণফোরাম) ১ জন, ঐক্যফ্রন্ট (এলডিপি) ১ জন, এলডিপি ১ জন, জেএসডি ১ জন, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি (এনপিপি) ৩ জন, মুসলিম লীগের ১ জন, তরিকত ফেডারেশন ১ জন, গণফ্রন্টের ১ জন ও স্বতন্ত্র ২ জন।

সকাল ১০টা থেকে জেলা প্রসাশকের সম্মেলন কক্ষে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক ড. সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস প্রার্থীদের হাতে বরাদ্দকৃত প্রতীক তুলে দেন। প্রতীক নিয়ে হাসিমুখে প্রার্থীরা নিজনিজ এলাকায় গিয়ে উল্লাসে মেতে উঠেন। ময়মনসিংহ-৮ (ঈশ্বরগঞ্জ) আসনে মাহমুদ হাসান সুমন ও ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) আসনে মেজর জেনারেল আব্দুস সালাম আ’লীগের মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন।

এছাড়া ময়মনসিংহ-৫ (মুক্তাগাছা) আসনে জাতীয় পার্টির সালাহউদ্দিন আহমদ মুক্তি, ময়মনসিংহ-৬ (ফুলবাড়িয়া) আসনে খন্দকার রফিকুল ইসলাম, ময়মনসিংহ-৭ (ত্রিশাল) আসনে রওশন এরশাদ ও ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) আসনে মোহাম্মদ হাসনাত মাহমুদ লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ময়মনসিংহ-৮ (ঈশ্বরগঞ্জ) আসনে ঐক্যজোটের বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন এলডিপির এম এ বাসার।

ময়মনসিংহ-১ (হালুয়াঘাট-ধোবাউড়া) : জুয়েল আরেং (আ’লীগ-নৌকা), আলী আসগর (বিএনপি-ধানেরশীষ) ও হুমায়ুন মো. আব্দুুুল্লাহ আল হাদী (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-হাতপাখা)।

ময়মনসিংহ-২ (ফুলপুর-তারাকান্দা) : শরীফ আহমেদ (আ’লীগ-নৌকা), মো. শাহ শহীদ সারোয়ার (বিএনপি-ধানেরশীষ), মুফতি গোলাম মওলা ভূইয়া (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-হাতপাখা) ও মোহাম্মদ আবু বকর সিদ্দিক (স্বতন্ত্র-সিংহ)।

ময়মনসিংহ-৩ (গৌরীপুর) : নাজিম উদ্দিন আহামেদ (আ’লীগ-নৌকা), এম ইকবাল হোসেইন (বিএনপি-ধানেরশীষ), গোলাম মোহাম্মদ (জাকের পার্টি-গোলাপফুল), হারুন আল বারী (সিপিবি-কাস্তে), মো. আয়ুব আলী (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-হাতপাখা) ও প্রাণেশ পন্ডিত (তরিকত ফেডারেশন-ফুলেরমালা)।

ময়মনসিংহ-৪ (সদর) : রওশন এরশাদ (মহাজোট-লাঙ্গল), মো. আবু ওয়াহাব আকন্দ ওয়াহিদ (বিএনপি-ধানেরশীষ) এমদাদুল হক মিল্লাত (সিপিবি-কাস্তে), মো. হামিদুল ইসলাম (এনপিপি-আম) ও মো. নাসির উদ্দিন (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-হাতপাখা)।

ময়মনসিংহ-৫ (মুক্তাগাছা) : কে এম খালিদ (আ’লীগ-নৌকা), মোহাম্মদ জাকির হোসেন (বিএনপি-ধানেরশীষ), সালাহউদ্দিন আহামেদ মুক্তি (জাতীয়পার্টি-লাঙ্গল), মো. জহিরুল ইসলাম (জাকেরপার্টি-গোলাপফুল), হাকিম মো. মঞ্জুরুল হক (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-হাতপাখা), সামান মিয়া (এনপিপি-আম) মো. মোস্তফা কামাল এডভোকেট (স্বতন্ত্র-সিংহ)।

ময়মনসিংহ-৬ (ফুলবাড়ীয়া) : মো. মোসলেম উদ্দিন (আ’লীগ-নৌকা), শামছউদ্দিন আহমদ (বিএনপি-ধানেরশীষ), খন্দকার রফিকুল ইসলাম (জাতীয় পার্টি-লাঙ্গল), শফিকুল ইসলাম মিন্টু (জাসদ-স্বতন্ত্র-সিংহ), চৌধুরী মোহাম্মদ ইসহাক (জেএসডি-তারা) ও নুরুল আলম সিদ্দিকী (ইসালমী আন্দোলন বাংলাদেশ-হাতপাখা)।

ময়মনসিংহ-৭ (ত্রিশাল) : রওশন এরশাদ (জাতীয় পার্টি-লাঙ্গল), মো. হাফেজ রুহুল আমিন মাদানী (আ’লীগ-নৌকা), ডা. মাহবুবুর রহমান (বিএনপি-ধানেরশীষ) ও মো. আজিজুল হক (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-হাতপাখা)।

ময়মনসিংহ-৮ (ঈশ্বরগঞ্জ) : ফখরুুল ইমাম (মহাজোট-লাঙ্গল), মাহমুদ হাসান সুমন (আ’লীগ বিদ্রোহী-সিংহ), এ এইচ এম খালেকুজ্জামান (গণফোরাম-ধানেরশীষ), সাইফুদ্দিন আহাম্মেদ মনি (মুসলিম লীগ-হারিকেন), মো. হাবিবুল্লাহ (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-হাতপাখা), মো. আব্দুল আল মামুন (এপিপি-আম) ও এম এ বাসার (এলডিপি-ছাতা)।

ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) : আনোয়ারুল আবেদিন খান তুহিন (আ’লীগ-নৌকা), মেজর জেনারেল আব্দুস সালাম (আ’লীগ বিদ্রোহী-কুড়াল), খুররম খান চৌধুরী (বিএনপি-ধানেরশীষ), মো. সাইদুর রহমান (ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন-হাতপাখা), মো. শফিকুল আলম (জাকের পার্টি-গোলাপফুল), মোহাম্মদ হাসনাত মাহমুদ (জাতীয়পার্টি-লাঙ্গল)।

ময়মনসিংহ-১০ (গফরগাঁও) : ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল (আ’লীগ-নৌকা), সৈয়দ মাহবুব মোরশেদ (এলডিপি-ধানেরশীষ), দ্বীন ইসলাম (গণফ্রন্ট-মাছ), মো. নুরুদ্দিন (এনপিপি-আম) ও মো. জয়নাল আবেদিন (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-হাতপাখা)।

ময়মনসিংহ-১১ (ভালুকা) : কাজিম উদ্দিন আহামেদ ধনু (আ’লীগ-নৌকা), ফকরুদ্দিন আহমেদ (বিএনপি-ধানেরশীষ), অ্যাডভোকেট আমানউল্লাহ সরকার (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-হাতপাখা) ও নাজমা আক্তার (জাকের পার্টি-গোলাপফুল)।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *