কোন কাজকেই ছোট করে দেখা টিক নয় : শাল্লা উপজেলা চেয়ারম্যান

বকুল আহমেদ তালুকদার,সুনামগঞ্জ : কোনো কাজকে ছোট করে দেখা যাবেনা, কর্ম ছাড়া এগিয়ে যাওয়া যাবেনা, কর্মকে ধর্ম মনে করে নিরলস চিত্তে আমাদের কাজ করে যেতে হবে। জেনে রাখুন নিরুত্তাল সাগরে জাহাজ চালিয়ে যেমন দক্ষ নাবিক হওয়া যায়না, ঠিক তেমনি উদ্যোগ, কর্ম ও একাগ্রতা ছাড়া জীবনে সফলতা অর্জন করা যায়না। কথাগুলো
আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস ২০১৮ উপলক্ষে ” জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ” শীর্ষক কার্যক্রমের আওতায় উপজেলা গণমিলনায়তনে ৯ ডিসেম্বর রবিবার উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে, মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়েরর উদ্যোগে এবং শাল্লা উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় জীবণযুদ্ধে উত্তীর্ণ শ্রেষ্ঠ জয়িতাদের সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে বলেন শাল্লা উপজেলা চেয়ারম্যান গনেন্দ্র চন্দ্র সরকার।

শাল্লা উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমানের পরিচালনায় উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ মামুনুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জয়িতাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ফেরদৌস আলম, সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা দীন মোহাম্মদ, শাল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আশরাফুল ইসলাম, কেয়ার বাংলাদেশ শাল্লার প্রকল্প কর্মকর্তা বিকাশ চন্দ্র সাহা। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ৫টি ক্যাটাগরিতে ৫জন জয়িতাকে ক্রেষ্ট ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।

৫ ক্যাটাগরির মধ্যে শিক্ষা ও চাকুরী ক্ষেত্রে বাহাড়া ইউনিয়নের উপজেলা সদরস্থ ঘুঙ্গিয়ারগাঁও গ্রামের বাসিন্দা বীথি রাণী সমাজপতি, সফল জননী হিসেবে হবিবপুর ইউনিয়নের হবিবপুর গ্রামের বাসিন্দা সাবিত্রী রাণী দাস, সমাজ উন্নয়নে হবিবপুর ইউনিয়নের হবিবপুর গ্রামের সুলেখা রাণী সুত্রধর, অর্থনৈতিক সফলতায় আটগাঁও ইউনিয়নের রাহুতলা গ্রামের পার্বতী রাণী রায় ও হবিবপুর ইউনিয়নের নিয়ামতপুর গ্রামের রেভা রাণী সরকারকে নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরুর ক্যাটাগরিতে সম্মাননা ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তাগণ সমাজে সফলতা অর্জনকারী, দেশী ও বিদেশী বিভিন্ন ব্যক্তির জীবন থেকে আলোকপাত করে উল্লেখ করেন জীবন মানেই সংগ্রাম, বেঁচে থাকতে হলে জীবনের সাথে সংগ্রাম করতে হবে, তাহলেই আপনি সফলতা অর্জন করবেন।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *